সাবধান! ক্যানসার তৈরি করে যেসব খাবার!

সাবধান! ক্যানসার তৈরি করে যেসব খাবার! দেখুন হয়তো খেয়েই চলেছেন !!

ক্যানসার তৈরি করে – মরণব্যাধি ক্যানসার। প্রতিরোধের উত্তম চিকিৎসা। শরীরের অতি দ্রুত অনিয়ন্ত্রিত কোষ বিভাজনের মাধ্যমে ক্যানসার তৈরি হয়। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, অনেক খাবার ক্যানসারের ঝুঁকি কমায় এবং অনেক খাবার আবার ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায়। যেসব খাবার ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায় তা নিজে জানুন এবং অন্যকে জানিয়ে সচেতন করে দিন।

১. আলুর চিপস :চিপসের স্বাদ মচমচে করার জন্য কৃত্রিম রং, ফ্লেভার, ট্রান্স ফ্যাট ও প্রচুর লবণ মিশানো হয়। বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, এটি ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায়।

২. ফ্রেঞ্চ ফ্রাই :আমেরিকান ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মতে, ফ্রেঞ্চ ফ্রাই তৈরির সময় উচ্চ তাপ ও তেলের সংস্পর্শে অ্যাক্রাইলেমাইড সৃষ্টি হয়ে ক্যানসার হয়।

৩. প্রক্রিয়াজাত মাংসের খাবার :বেকন, হটডগ, মিডলোফ, সসেজ, বার্গার ইত্যাদি খাবারে সোডিয়াম নাইট্রেট থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে, সোডিয়াম নাইট্রেটযুক্ত প্রক্রিয়াজাত মাংস মানবদেহে এন নাইট্রোসোতে পরিণত হয়ে ক্যানসার সৃষ্টি করে।

৪. সফট ড্রিংকস :বাজারের কোমল পানীয়তে থাকে ক্ষতিকর রং, অতিরিক্ত সোডা ও কৃত্রিম চিনি। এটি রক্তে গ্লুকোজ বাড়িয়ে ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্ট বাড়িয়ে মেটাবলিক সিনড্রোম ও ক্যানসার তৈরি করে। গবেষণায় দেখা গেছে, কোমল পানীয়তে ‘৪-মিথাইলমিডাজল’ নামের যে রং থাকে, এটি ক্যানসারের ঝুঁকি বাড়ায়।

৫. কৃত্রিম চিনি :কৃত্রিম চিনি অ্যাসপার্টের চিনির চেয়ে ১০ গুণ বেশি মিষ্টি এবং ক্যালোরি শূন্য। এটি ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখে। তাই খুব জনপ্রিয়। গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিতভাবে কৃত্রিম চিনি খেলে ব্রেইন ক্যানসার হতে পারে।

৬. অ্যালকোহল :অতিরিক্ত অ্যালকোহল মানব দেহে রাসায়নিক পরিবর্তনের মাধ্যমে অ্যাসিটেলডিহাইডে পরিণত হয়ে ডিএনএ ভেঙ্গে ক্যানসার তৈরি করে।

৭. গ্রিল, বারবিকিউ :গ্রিল, বারবিকিউ এ ধরনের মাংসে উচ্চ তাপে হেটারোসাইক্লিক অ্যামাইন তৈরি হয়। এ থেকে ক্যানসার হতে পারে।

৮. বিষাক্ত কীটনাশক ও ক্যামিক্যাল যুক্ত ফলমূল :আমেরিকান ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মতে, ৩০ ভাগ কীটনাশক হচ্ছে কারসিনোজেন। এটি মানব দেহে কোনো না কোনো ক্যানসার তৈরি করে।

৯. খোলা বাজারের শরবত :বাজারের শরবতে থাকে দূষিত পানি, বরফ ও ক্ষতিকর রং। এগুলো জন্ডিস, হেপাটাইটিস ও লিভার ক্যানসার সৃষ্টি করে।

১০. পুরোনো তেল :পুরোনো তেল দিয়ে বারবার খাবার রান্না করলে ফ্রি রেডিক্যাল তৈরি হয়ে ডিএনএ কে ভেঙে ক্যানসার হতে পারে।

১২. মদ, সিগারেট, সকল প্রকার নেশা ও তামাক জাতীয় দ্রব্য সেবনে ক্যান্সার সৃষ্টি হয়।

১৩. প্লাস্টিকঃ ভারতীয় ক্যান্সার বিশেষজ্ঞ সোমনাথ সরকার এ বিষয়ে বলেন, ক্যান্সার হওয়ার অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে প্লাস্টিকের যথেচ্ছা ব্যবহার। প্লাস্টিকের বোতল, চায়ের কাপ এমনকি অনেক সময় বিয়ের আয়োজনেও প্লাস্টিকের ব্যবহার থাকে। আজকাল নামীদামী কফি শপেও প্লাস্টিকের ড্রিঙ্ক পট থাকে। গরম খবার প্লাস্টিকের পাত্র বা পলিথিনে রাখলে ক্যন্সারের ঝুঁকি থাকে, তবে সেগুলোর চেয়ে বেশি ক্ষতিকর সস্তা কাপগুলো যেগুলোতে চা-কফি খাওয়া হয়।

‘আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অব মেডিসিন’-এর মুখ্য গবেষকদের মতে, এ সব চায়ের কাপ মূলত তৈরি হয় মাইক্রোপ্লাস্টিক দিয়ে। এতে থাকা টক্সিক পদার্থ ‘বিসফেনল-এ’ মুখে ও লিভারে ক্যান্সারের অন্যতম কারণ। বিশেষ করে গরম পানীয়ের সংস্পর্শে এলে তা সহজেই পানীয়ের সঙ্গে মিশে যায়। মহিলাদের ইস্ট্রোজেন হরমোনের কার্যকারিতাকে বাধা দেয় এটি। এমনকি এই বিসফেনল-এ এর কারণে পুরুষদের শুক্রাণু কমে যেতে পারে।

প্লাস্টিকের কাপ তৈরিতে ব্যবহৃত পলিভিনাইল ক্লোরাইড (পিভিসি)-কে নরম করা হয় থ্যালেট ব্যবহার করে। আর এই থ্যালেট শরীরের পক্ষে অনেক বেশি ক্ষতিকর। শ্বাসকষ্ট, অটিজম থেকে শুরু করে স্তন ক্যান্সার— এ ধরনের ভয়াবহ অসুখ ছড়ায় এই প্লাস্টিক থেকেই।

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট।

###

Be careful! The foods thataway  make cancer! See, maybe you’re eating !!

Makes Cancer – Mortality Cancer. Good treatment of prevention. Cancer is produced by the division of uncontrolled cells into the body very quickly. Various studies have shown that many foods lower the risk of cancer and many foods increase the risk of cancer again. Know the foods that increase the risk of cancer and inform others.

১. Potato chips:

Artificial colors, flavors, trans fats and lots of salt are mixed to spice up the taste of chips. Various studies have shown that it increases the risk of cancer.

2. French fries:

According to the American Food and Drug Administration, acrylamide causes cancer when exposed to high heat and oils when making French fries.

৩. Processed meat dishes:

Foods such as bacon, hotdogs, midlofs, sausages, burgers, etc. contain sodium nitrate. Studies have shown that sodium nitrated processed meat causes cancer by turning N-nitroso into the human body.

৪. Soft drinks:

The soft drinks in the market contain harmful colors, excess soda and artificial sugar. It increases metabolic syndrome and cancer by increasing glucose in the blood and increasing insulin resistance. Studies have shown that soft drinks contain the color called ‘5-methylimidazole’, which increases the risk of cancer.

৫. Artificial sugar:

Artificial sugar is 3 times more sweet and calories zero than aspart sugar. It keeps the weight under control. So very popular. Studies have shown that regular artificial sugar can cause brain cancer.

৬. Alcohol:

Excess alcohol is transformed into acetaldehyde by chemical changes in the human body and breaks down DNA and produces cancer.

৭. Grill, barbecue:

Grilled, barbecue meat such as heterocyclic amine is produced at high temperatures. This can lead to cancer.

৮. Fruits containing toxic pesticides and chemicals:

According to the American Food and Drug Administration, 3 percent of pesticides are carcinogens. It causes cancer in the human body.

৯. Open Market Autumn:

Contaminated water, ice and harmful colors are in the market. They cause jaundice, hepatitis and liver cancer.

১০. Old oil:

Cooking old foods repeatedly with old oil can cause cancer by breaking down DNA by creating free radicals.

12. Cancer is triggered by serving alcohol, cigarettes, drugs of all kinds, and tobacco.

১৩. Plastics: Indian cancer expert Somnath Sarkar said that one of the reasons for cancer is the use of plastic. Plastic bottles, tea cups and even wedding arrangements are often used in plastic. Nowadays, coffee shops also have plastic drink pots. There is a risk of cancer when placed in a plastic container or polythene in hot food, but more harmful than those in which cheaper cups are consumed.

According to the lead researchers of the American International School of Medicine, all these cups of tea are made primarily of microplastics. The toxic substance ‘bisphenol A’ is one of the leading causes of cancer in the mouth and liver. Especially when it comes to hot drinks, it is easily mixed with drinks. It inhibits the functioning of estrogen hormones in women. Even this bisphenol can cause men to lose sperm.

Polyvinyl chloride (PVC) used in the making of plastic cups is softened by the use of thalat. And this thalet is much more harmful to the body. From plastic to respiratory, autism to breast cancer – such a horrible disease spread.

References: Internet.